রেইনউইক বাঁধ কুষ্টিয়া

1 people checked in

কুষ্টিয়া শহরবাসীর জন্য গড়াই নদীর সাথে রেইনউইক বাঁধটা হল কুষ্টিয়ার কক্সবাজার। রেইনউইক বাঁধ কুষ্টিয়া শহরের অভ্যন্তরে অবস্থিত। এটি গড়াই নদীর কবল থেকে শহর রক্ষা বাঁধ। রিক্সাযোগে যাওয়া যায়। সময় লাগে প্রায় ১০ মিনিট। ডবলিউ বি রেনউইক নামে জনৈক স্কটিশ ভদ্রলোক রাজশাহী জেলার বাগাতী পাড়া থানার লক্ষণ হাটি নামক স্থানে ১৮৮১ সালে মেসার্স রেনউইক এন্ড কোম্পানী নামে ইঞ্জিনিয়ারিং কারখানাটি প্রথম প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯১৪ সালে এই প্রতিষ্ঠানটি একটি লিমিটেড কোম্পানীতে রুপান্তরিত হয়। চিনি কলের যাবতীয় খুচরা যন্ত্রাংশ, কৃষিযন্ত্র, আখ মাড়াই কল ও তার যন্ত্রাংশ এই কারখানায় তৈরী করা হয়। এই মিলের উত্তর দিক সংলগ্ন গড়াই নদী। নদীর তীরবর্তী বাঁধ এবং এর সঙ্গেই মিলে পতিত জমিতে লাগনো মনোরম বৃক্ষ শোভিত স্থানটি কুষ্টিয়ার অন্যতম দর্শনীয় স্থান। প্রতিদিন অসংখ্য দর্শনার্থী এখানে আসেন। নদীর তীরে এই স্থানটি শহরের মানুষের কাছে অবসর বিনোদনের জন্য জনপ্রিয়। এই স্থানটির একটি বিশেষত্ব এখান থেকে সূর্যোদয় এবং সূর্যাস্ত দুইই দেখা যায়। এই দুই সময়েই এখানে লোক সমাগম বেশি হয়। বর্তমানে বাঁধের পশ্চিমে নদীর বাঁকে বাঁধটি বর্ধিত করা হয়েছে। আরো বেশি সৌন্দর্য বৃদ্ধির পরিকল্পনা রয়েছে। এই বাঁধটি রেনউইক বাঁধ নামে পরিচিত। এক কিলোমিটার পূর্বে থানাপাড়াতে ২য় এবং এক কিলোমিটার পশ্চিমে ৩য় বাঁধ রয়েছে।

  • How to go কিভাবে যাবেন কুস্টিয়ার মজমপুর গেট থেকে হেঁটে যাওয়া যায়।
  • Lodging কোথায় থাকবেন থাকার জন্য শহরেই মানসম্মত অনেক হোটেল পাবেন আপনি। এর মধ্যে হোটেল রিভার ভিউ, গোল্ড ষ্টার, রাতুল, সানমুন, সম্রাট, পালকী অন্যতম। আর খাওয়ার জন্য রয়েছে অসংখ্য রেস্টুরেন্ট। তার মধ্যে জাহাঙ্গীর হোটেল, শিল্পী হোটেল, শফি হোটেল, হোটেল খাওয়া-দাওয়া, মৌবন রেস্টুরেন্টসহ ৩টি ভাল মানের চাইনিজ রেস্টুরেন্ট।
  • Foods কি খাবেন N/A
  • Must see অব্যশ্যই দেখবেন রেনউইক যজ্ঞেশ্বর কোং- এই প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন সুগার মিলের জন্য তৈরি যন্ত্রপাতির পার্টস তৈরি করে। বাধ এর ডান পাশে মীর মোশারফ হোসেন ব্রিজ। যাবার পথে কুস্টিয়া পৌরসভাটি দেখে যেতে পারেন। এইটাও বেশ পুরানো পৌরসভা সে ব্রিটিশ আমলে তৈরি হয়েছে।

Reviews

(Rate here)

Articles

Find on the Map