বিছানাকান্দি সিলেট

4 people checked in

নীল আকাশের সাথে মিশে যাওয়া সারিসারি পাহাড় আর পাহাড়ের বুক চিরে পিয়ান নদীর স্বচ্ছ সবুজ জলে ভেসে ওঠা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জলছবিই হচ্ছে বিছানাকান্দি। দূরের চেরাপুঞ্জি আর কাছের মেঘালয় থেকে নেমে আসা পাথুরে বিছানায় ঝরর্ণার জলের বিছানা হচ্ছে বিছানাকান্দি। এটি পাথর কোয়ারি হিসেবে পরিচিত। শক্ত পাথরের বুকে হিমশীতল জলরাশি যেন সমুদ্রের ঢেউয়ে ভাসিয়ে দেয়ার অনুভূতি জাগায়। সিলেট থেকে ৬০ কি. মি. উত্তর পূর্বে গোয়াইনঘাট উপজেলার রুস্তমপুর ইউনিয়নে বিছানাকান্দি গ্রাম। পুরো গ্রামটি যেন সাজানো বাগান। আঁকাবাঁকা মেঠো পথের ধারে ধানক্ষেতে, আর ধানক্ষেতের ওপারে পাহাড়ের গায়ে মেঘের খেলা নিমিষেই মনটাকে ভাল করে দেয়।

  • How to go কিভাবে যাবেন বিছনাকান্দি যেতে হলে সর্বপ্রথম আপনাকে সিলেট নগরীর আম্বরখানা পয়েন্ট যেতে হবে। সেখানে বিমানবন্দর রোডের দিকে সিএনজি স্টেশন আছে। সিএনজি রিজার্ভ করে হাদারপার নামক জায়গা পর্যন্ত গেলে ভাল হয়। পাঁচজন মিলে ১০০০টাকায় সাধারণত ভাড়া নেওয়া হয়। তবে মানুষ কম থাকলে ৮০-২০০ টাকা জনপ্রতিও যাওয়া যায়। হাদারপার বাজারটি খুব একটা বড় না আবার ছোটও না। মোটামুটি সবকিছুই পাবেন। খাবার, পানি, কাপড় সবই কিনতে পাওয়া যায়। হাদারপার বাজারেই বিছনাকান্দি-পান্থুমাই–লক্ষনছড়া যাওয়ার নৌকা পাওয়া যায়। সুন্দর বেশভুষা দেখে মাঝিরা ২০০০টাকা চেয়ে বসতে পারে। ভুলেও রাজি হবেন না। নৌকা ভাড়া আসা-যাওয়া সর্বোচ্চ ১১০০-১৫০০ টাকা হলে ভাল। দরাদরি করে এর চেয়ে কমে পেলে ভাল তবে, অবশ্যই এর বেশি দামে যাবেন না। শুকনো মৌসুমে হেঁটে যাওয়া যায়। সেক্ষেত্রে সময় লাগবে ৩০-৪০ মিনিট। বর্ষাকালে নৌকায় যাওয়াই উত্তম। এক নৌকায় বিছনাকান্দি, পান্থুমাই ও লক্ষনছড়া ঘুরে দেখাবে বলে নিবেন।
  • Lodging কোথায় থাকবেন যেতে আসতে সময় না লাগার কারনে আপনাকে আর থাকার চিন্তা করতে হবে না। সিলেটে থাকার মত অনেকগুলো হোটেল আছে, আপনি আপনার প্রয়োজন ও সামর্থ অনুযায়ী যে কোন ধরনের হোটেল পাবেন। কয়েকটি পরিচিত হোটেল হল – হোটেল হিল টাউন, গুলশান, দরগা গেইট, সুরমা, কায়কোবাদ ইত্যাদি। লালা বাজার এলাকায় কম ভাড়ায় অনেক মানসম্মত রেস্ট হাউস আছে৷ হোটেল অনুরাগ–এ সিঙ্গেল রুম ৪০০টাকা(দুই জন আরামসে থাকতে পারবেন), তিন বেডের রুম ৫০০টাকা(নরমালই ৪জন থাকতে পারবেন)। রাত যাপনের জন্য দরগা রোডে বিভিন্ন মানের আবাসিক হোটেল রয়েছে। রুম ভাড়া ৫০০/- টাকা থেকে ৫০০০/- টাকা পর্যন্ত। শহরের শাহজালাল উপশহরে হোটেল রোজ ভিউ (০৮২১-৭২১৪৩৯) দরগা গেইটে হোটেল স্টার প্যাসিফিক (০৮২১-৭২৭৯৪৫) ভিআইপি রোডে হোটেল হিলটাউন (০৮২১-৭১৬০৭৭) বন্দরবাজারে হোটেল মেট্রো ইন্টারন্যাশনাল (০৮২১-৭২১১৪৩) নাইওরপুলে হোটেল ফরচুন গার্ডেন (০৮২১-৭১৫৫৯০) জেল সড়কে হোটেল ডালাস (০৮২১-৭২০৯৪৫)। লিঙ্ক রোডে হোটেল গার্ডেন ইন (০৮২১-৮১৪৫০৭)। আম্বরখানায় হোটেল পলাশ (০৮২১-৭১৮৩০৯)। দরগা এলাকায় হোটেল দরগাগেইট (০৮২১-৭১৭০৬৬) হোটেল উর্মি (০৮২১-৭১৪৫৬৩)। জিন্দাবাজারে হোটেল মুন লাইট (০৮২১-৭১৪৮৫০) তালতলায় গুলশান সেন্টার (০৮২১-৭১০০১৮)
  • Foods কি খাবেন খাওয়ার জন্য সিলেটের জিন্দাবাজারে বেশ ভালো কিছু খাওয়ার হোটেল আছে। পাঁচ ভাই,পানশি ও পালকি সবচেয়ে জনপ্রিয় । এগুলোতে প্রায় ২৯ প্রকারের ভর্তা আছে । ১৫০ টাকার মধ্যে খাওয়া সম্পন্ন করতে পারবেন।
  • Must see অব্যশ্যই দেখবেন পাংথুমাই, লক্ষণছড়া, কুলুমছড়া

Reviews

(Rate here)

Articles

Find on the Map