জ্যাকব টাওয়ার ভোলা

people checked in

উপমহাদেশের উচ্চতম ওয়াচ টাওয়ার এটি। ভোলা জেলার চরফ্যাসন উপজেলার মূল শহরে এর অবস্থান। স্থানীয় সংসদ সদস্য, বন ও পরিবেশ উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের নামানুসারে টাওয়ারটির নামকরণ করা হয়েছে। ২২৫ ফুট উঁচু এই টাওয়ারটি ১৮ তলা বিল্ডিংয়ের সমান। ৮ মাত্রার ভূমিকম্প সহনীয় ওই টাওয়ারের চূড়ায় ওঠার জন্য সিঁড়ির পাশাপাশি থাকবে ১৬ জন ধারণক্ষমতার অত্যাধুনিক ক্যাপসুল লিফট। টাওয়ারটি থেকে বঙ্গোপসাগরসহ চরফ্যাসন শহরের চারপাশের ২০ কিমি এলাকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করা যায়। মূল টাওয়ারটির পাশে রয়েছে মনোরম একটি কৃত্রিম পুকুর, শিশু পার্ক ও বিনোদন উদ্যান। দেশের ২য় বৃহত্তম এই ওয়াচ টাওয়ার থেকে উপভোগ করা যাবে চর কুকরি-মুকরি, তারুয়া সমুদ্র সৈকত, ম্যানগ্রোভ বনের কিছু অংশ এবং আসে পাশের অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। ১৮ তলা উচ্চতা বিশিষ্ট (২১৫ ফুট) টাওয়ার টিতে লিফট আছে, উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন বাইনোকুলার আছে যা দিয়ে ১০০ বর্গ কিমি এলাকা দেখা যাবে। ওয়াচ টাওয়ারে দাঁড়ালেই পশ্চিমে তেঁতুলিয়া নদীর শান্ত জলধারা, পূর্বে মেঘনা নদীর উথাল-পাতাল ঢেউ, দক্ষিণে চর কুকরি-মুকরিসহ বঙ্গোপসাগরের বিরাট অংশ নজরে আসবে। প্রবেশ শুভেচ্ছা মুল্যঃ১০০ টাকা। বিঃদ্রঃ বুধবার বন্ধ থাকবে।

  • How to go কিভাবে যাবেন ঢাকার সদরঘাট থেকে এমভি তাসরিফ এবং ফারহান নামক লঞ্চ গিয়ে থাকে। তাসরিফ রাত সাড়ে ৮টা এবং ফারহান সাড়ে ৭টায় ছেড়ে থাকে। ডেকের ভাড়া জন প্রতি ১৫০ টাকা। সাড়ে ৮টায় লঞ্চ ছাড়লে সকাল ৭টায় চরফ্যাসন ঘাটে পৌছাবে। সেখান থেকে ই-বাইক পাওয়া যায় ৪০-৫০টাকা পরবে জনপ্রতি ভাড়া জ্যাকব টাওয়ারে যেতে। আবার সেখান থেকে ঢাকায় আসার জন্য বিকাল সাড়ে ৫টায় তাসরিফ লঞ্চ ছাড়ে যেটা ঢাকায় পরদিন সকাল ৭টায় পৌছায়। যদি ডেকে যান তাহলে সাথে শুয়ে থাকার চাদর নিয়ে নিবেন কারন লঞ্চ জার্নিটা অনেক বড়।
  • Lodging কোথায় থাকবেন জেলা পরিষদ ডাকবাংলোতে থাকতে পারবেন।
  • Foods কি খাবেন জ্যাকব টাওয়ারের উপরে খাবারে দোকান আছে। বেশির ভাগ খাবার প্যাকাট জাতিয় এবং দাম ৫/১০টাকা বেশি।
  • Must see অব্যশ্যই দেখবেন N/A

Reviews

(Rate here)

Articles

Find on the Map